Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৭ জুন ২০১৮

শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার

জনাব মোহাম্মদ আবুল কালাম এনডিসি, চট্টগ্রাম জেলায় ১৯৬৩ সনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় হতে হিসাব বিজ্ঞানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। অতপর কর্মজীবনের শুরুতে তিনি ১৯৮৮-৯০ এই তিন বছরের সংক্ষিপ্ত সময়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। তিনি ১৯৯১ সনে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন ক্যাডার)-এ যোগদান করেন। তারপর থেকে সরকারী বিভিন্ন দপ্তরে কাজে নিয়োজিত থেকেছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে স্থানীয় সরকার, আর্থিক ও ব্যাংকিং বিভাগ, বৈদেশিক কর্ম সংস্থান বিভাগ, বানিজ্য ও শিক্ষা এবং শিপিং কর্পোরেশন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন - শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার পদে গত ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ মাস হতে কর্মরত আছেন।

 

          তিনি সরকারের বিভিন্ন বিভাগে কাজের মাধ্যমে মুল্যবান অভিজ্ঞতা অর্জন করেন এবং একই সাথে কর্মরত সময়ে উচ্চতর শিক্ষাও অর্জন করেছেন। তিনি ২০০০ সালে যুক্তরাজ্যের Ulster বিশ্ববিদ্যালয় হতে সরকারী আর্থিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পোষ্ট গ্রেজুয়েট ডিপ্লোমা অর্জন করেন। অতপর তিনি উন্নয়ন অর্থনীতি বিষয়ে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০৮ সালে এমএসসি ডিগ্রী লাভ করেন। এছাড়া তিনি যুক্তরাজ্যের ব্র্যাডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং অষ্টেলিয়ার কুইচল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয় হতে বিশেষায়িত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। এ ছাড়াও তিনি দেশ বিদেশের যেসব গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হতে প্রশিক্ষণ লাভ করেছেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- বাংলাদেশ বিপিএটিসি, বিসিএস (প্রশাসন) একাডেমী, ফাইন্যান্সিয়াল ম্যানেজম্যান্ট একাডেমী, ব্রাক সেন্টার (উন্নয়ন অর্থনীতি সংক্রান্ত), ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ, আইএমএফ ইনষ্টিটিউট (যুক্তরাষ্ট্র), মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র ও কুটনৈতিক বিষয়ক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, সিভিস সার্ভিস কলেজ সিংগাপুর, ইটালীর তুরিনে অবস্থিত আইএলও এর আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং থাইল্যান্ডে অবস্থিত ইউএনএইচসিআর এর ই-সেন্টার। 

 

          ব্যক্তিগত জীবনে জনাব মোহাম্মদ আবুল কালাম বিবাহিত এবং এক কন্যা ও দুই পুত্র সন্তানের জনক। তার কন্যা মেডিক্যাল কলেজে ৪র্থ বর্ষে অধ্যয়নরত এবং পুত্রদ্বয় মাধ্যমিক পর্যায়ে অধ্যয়নরত। জনাব কালাম যৌথভাবে “Growth of Government Expenditure in Bangladesh: An Empirical Investigation into the Validity of Wagner’s Law” শিরোনামে একটি আর্টিকেল প্রণনয় করেন। যা Global Economy Journal (ভলিয়ম নং-৯, ইস্যু-২, আর্টিকেল সংখ্যা-৫) থেকে প্রকাশিত হয়েছে ২০০৯ সালে।


Share with :

Facebook Facebook